|

চমৎকার সুখানুভূতি!

niru11 কটা চমৎকার সুখানুভূতি দিয়ে শুরু করবো আজকের লেখাটা। এবারের ঈদের জামাত পড়েছি ক্যালগেরির মালব্রো পার্ক অডিটোরিয়ামে। ক্যালগেরিস্থ বাঙ্গালীদের সংগঠন বাংলাদেশ এসেসিয়েশন সেখানে এবারের ঈদের জামাতের আয়োজন করেছিলো এককভাবে।

আমার সাথে ছিলো বন্ধু আজহারুল ইসরাম মাখন ও ওর ছেলে আবেশ। নামাজস্থলে আমি যেখানে বসেছিলাম, আমার ঠিক পাশেই বসেছিলেন এক ভদ্রলোক। তখনো নামাজ শুরু হতে অনেক দেরী। আমি ভদ্রলোকের সাথে টুকটাক কথা বলছিলাম।

তিনি তার নাম বললেন আনোয়ার। তিনি জানালেন, ক্যালগেরি থেকে আটশ’ কিলোমিটার দূরত্বের ব্যবধানে অবস্থিত ফোর্ড ম্যাক মেরী সিটিতে তিনি বসবাস করেন। অফিসের কাজে ক্যালগেরিতে এসেছেন। উঠেছেন হোটেলে। ঈদও এখানেই করছেন। সাথে অবশ্য পরিবারকেও নিয়ে এসেছেন।

আমি তার কাছে জানতে চাইলাম, ফোর্ড ম্যাক মেরীতে বাঙ্গালীর সংখ্যা কেমন?

উত্তরে তিনি জানালেন, সব মিলিয়ে শ’তিনেক হবে।

ছোট্ট শহর। এমন একটি শহরে বাঙ্গালীদের মা‌ঝে সময়ের কথা’র প্রচারের উদ্দেশে আমি তাকে বললাম, কানাডা থেকে একটা নতুন অনলাইন সাপ্তাহিক পত্রিকা বের হচ্ছে। যদি কিছু মনে না করেন, তবে আপনি আপনার শহরের বাঙ্গালীদের পত্রিকাটি পড়তে বলবেন।

আনোয়ার সাহেব পত্রিকাটির নাম জানতে চাইলেন।

আমি বললাম, ‘সময়ের কথা’।

এরপর আনোয়ার সাহেব আমাকে অবাক করে দিয়ে বললেন, পত্রিকাটি আমি দেখেছি এবং গত দুটো সংখ্যা পড়েছি।

প্রশ্ন করলাম, কিভাবে জানলেন পত্রিকাটির কথা?

উত্তরে তিনি বললেন, বাংলাদেশের পত্রিকার অনলাইন সংস্করণে সময়ের কথা’র লিঙ্ক উল্লেখ করে নিউজ ছাপা হয়েছে, তা দেখেই।

প্রশ্ন করলাম, কেমন হচ্ছে পত্রিকাটি? আপনার কেমন লেগেছে?

আনোয়ার সাহেবের উত্তর, বেশ সুন্দর। পড়ার অনেক কিছু আছে। যা প্রবাসের পত্রিকাগুলোতে দেখা যায় না। পত্রিকাটির সব কিছুই সুন্দর। আমার কাছে ভালো লেগেছে পত্রিকাটি।

বলার অপেক্ষা রাখে না, সদ্য প্রকাশিত একটি পত্রিকা সম্পর্কে একজন পাঠকের এমন অনুভূতি যে কোনো সম্পাদকের কাছে অতীব আনন্দের। আমিও আনোয়ার সাহেবের কথায় আনন্দিত হলাম। হলাম পুলকিত।

দিন গড়ানোর সাথে সাথে সময়ের কথা’র পাঠক হুহু করে বাড়ছে, আর তা থেকেই আমরা বুঝতে পারি পত্রিকার পাঠকের কাছে গ্রহণযোগ্যতা; তারপরও এভাবে একেবারে সাক্ষাৎ পাঠকের অনুভূতি অনেক ভালো লাগার।

আমরা সব সময় সচেষ্ট থাকবো আমাদের পত্রিকা সম্পর্কে পাঠকের এ অনুভূতি অব্যাহত রাখতে।

এদিন ক্যালগেরির ঈদের জামাত শেষে নামাজিদের মাঝে ক্যালগেরির পাঠকদের ‘সময়ের কথা’ পড়ার আহবান জানিয়ে বিশে‌ষ লিফলেট বিতরণ করা হয়। এ ক্ষেত্রে ক্যালগেরিস্থ বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি ও বিশিষ্ট সমাজসেবক আলম খন্দকার বে‍শ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন। আমরা তার কাছে সবিনয় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

সময়ের কথা দিনে দিনে পাঠকের কাছে আরো উপভোগ্য হয়ে উঠুক এবং আগামী দিনগুলো সকলের জন্য আরো সুন্দর সময় বয়ে নিয়ে আসুক এই কামনা রইলো। আল্লাহ হাফেজ।

সময়ের কথায় প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

মন্তব্য করুন





টুইটারে আমরা

পূর্বের সংখ্যা