আর এক পালক শোভা পাবে ম্যাকগ্রা’র মুকুটে

Filed under: ফিচার,সময়ের খেলা |

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সম্মানীয় স্থান ‘আইসিসি ক্রিকেট হল অব ফেম’-এ জায়গা পেতে যাচ্ছেন সাবেক অসি গতি তারকা গ্লেন ম্যাকগ্রা। ২০১২-১৩ তে অস্ট্রেলীয় পেসারকে আভিজাত্যপূর্ণ মর্যাদা দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। ইতিহাসের ৬৮তম পুরুষ ক্রিকেটার হিসেবে ‘হল অব ফেমে’ স্থান করে নিতে যাচ্ছেন ৪৩ বছর বয়সী নিউসাউথ ওয়েলস হিরো। সর্বশেষ ২০১২-১২তে সম্মানের এ আসনে ঠাঁই পেয়েছিলেন ক্যারিবিয়ান ব্যাটিং কিংবদন্তি ব্রায়ান লারা। গত বছর সেপ্টেম্বরে হল অব ফেমে স্থান করে দেয়া হয় ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেট চার্লসকে। ‘আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ইতিাহসের সর্বোচ্চ সম্মানীয় জায়গার জন্য আমাকে নির্বাচিত করা হয়েছে। সত্যি এ সম্মানের অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করার নয়। সাবেক লিজেন্ডরা সবাই মিলে যেভাবে নমিনেটেড করেছে, তাতে অভিভূত আমি। হল অব ফেমের অনুষ্ঠানে উপস্থিত হতে তর সইছে না আমার।’ প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে বলেন ম্যাকগ্রা। গতবার সেপ্টেম্বরে হলেও, এবার একটু আগেভাগেই দেয়া হচ্ছে সম্মাননা। আগামী ৪ জানুয়ারি অস্ট্রেলিয়া ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার সিডনির তৃতীয় টেস্ট চলাকালে অনুষ্ঠানিকভাবে ম্যাকগ্রাসহ এবানের ‘হল অব ফেমে’ ক্রিকেটারদের নাম অন্তর্ভুক্ত করা হবে। সোমবার আইসিস এক বিবৃতির মাধ্যমে নির্বাচিতদের নামসহ তারিখ নির্ধারণের বিষয়টি জানিয়ে দিয়েছে। ম্যাকগ্রাকে নিয়ে ২০১২-১৩ এক মৌসুমে তৃতীয় ক্রিকেটারকে হল অব ফেমে অন্তর্ভুক্ত করতে যাচ্ছে আইসিসি। অপরজন হলেন সাবেক ইংল্যান্ড মহিলা ক্রিকেটার এনিড ব্যাকওয়েল। ২০০৭ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানানো অসি গতিক তারকা ম্যাকগ্রা শেন ওয়ার্নের পর অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বাধিক ৫৬৩ উইকেট শিকারি। এজন্য খেলেছেন ১২৪ টেস্ট। আর ২৪৯ ওয়ানডেতে ব্রেট লির সঙ্গে যৌথভাবে সর্বোচ্চ ৩৮০ উইকে নেয়ার মালিক। গ্লেন ম্যাকগ্রাই আধুনিক অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটের সবচেয়ে সফল দ্রুতগতির বোলার। ম্যকগ্রাকে আইসিসির হল অব ফেমে অন্তর্ভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নেয়ায় আইসিসিকে ধন্যবাদ জানিয়েছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। সিএ প্রধান সাদারল্যান্ড বলেন, ‘গ্লেন আধুনিক অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেটের সেরা সম্পদগুলোর অন্যতম। স্টিভওয়ার যে অস্ট্রেলিয়া অপরাজেয় হয়ে উঠেছিল সেখানে বল হাতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান ছিল ওর। ওকে দারুণ এ সম্মাননা দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়ায় আইসিসিকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। ৪ তারিখের অনুষ্ঠানে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকেও ম্যাককে স্যালুট জানানো হবে।’ স্যালুট জানাতেই পারে অসিরা।

সময়ের কথায় প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।