পানিভরা মোবাইল সেট “মাইক্রোফ্লুইডিক”

Filed under: ফিচার,সময়ের লাইফস্টাইল |

momo

যারা মোবাইল ফোন ব্যবহার করেন, মোবাইল সেটটি নিয়ে তাদের দুশ্চিন্তা-দুর্ভাবনার অন্ত নেই। আর যদি সে সেটটা দামী সেট হয় তবে তো কথাই নেই; সে চিন্তা, সে দুর্ভাবনা বেড়ে যায় আরো কয়েকগুণ। চুরি যাওয়া, হারিয়ে যাওয়া, হাইজ্যাকারদের কাছে খোয়া যাওয়া, আগুনে পোড়া, পানিতে পড়া সবকিছু থেকেই প্রিয় মোবাইল সেটটি আগলে রাখতে হয় সার্বক্ষণিক।

আর মোবাইল সেটের সেসব দিক বিবেচনা করে বসেও নেই মোবাইল সেট বি‌শেষজ্ঞরা। গবেষক বা গবেষক কোম্পানীগুলো বিভিন্ন গবেষনার মাধ্য সে সব সমস্যার সমাধানেরও চেষ্টা করে যা্ছেন। পাশাপাশি এসব গবেষণার ফলে আবিস্কৃত হচ্ছে আধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর রক্ষাকবজও।

বলার অপেক্ষা রাখে না পানি মোবাইল সেটের জন্য বড়ই ক্ষতিকারক। ঝড়-বাদলে, বৃষ্টিতে ভিজে যাওয়া বা পকেট থেকে অসাবধানবশত সেটটি পানিতে পড়ে যাওয়ার পর মোবাইল সেটের ক্ষতি হবার আর আজ কোনো সম্ভাবনা নেই; সে সমস্যার সমাধান করেছেন মোবাইল প্রস্তুতকারকরা।

আজ আপনার শখের মোবাইল সেটটি পানিতে চুবিয়ে রাখলেও এক ফোঁটা ভেতরে ঢুকবে না এমন ওয়াটারটাইট ফোনও এখন পুরোনো কথা।

তবে এবার অন্য এক প্রযুক্তিনির্ভর হয়ে আসছে পানির ব্যাপারটা। অর্থাৎ চমকে দেবার মতো সংবাদ হচ্ছে, এবার মোবাইল ফোন সেটের ভেতরেই পানি! স্ক্রিনের কিবোর্ড বানানো হয়েছে সেই পানিতে। স্ক্রিনেই ভেসে উঠবে পানির কি বোর্ড। ছুঁলে লেখা হয়ে যাবে, তাতে ভিজবে না হাত। প্রস্তুতকারীরা এর নাম দিয়েছেন “মাইক্রোফ্লুইডিক”।

এ গবেষণার বিশেষজ্ঞদের প্রধান টম পিকে বলছেন, এই বৈপ্লবিক মাইক্রোফ্লুইডিক প্রযুক্তি শিগগিরই স্মার্টফোন, গাড়ি ও গেম কন্ট্রোলারে অর্থাৎ যা কিছুর টাচ স্ক্রিন রয়েছে সেখানেই ব্যবহার করা সম্ভব হবে। এর কার্যকর ব্যবহার কষ্টকর টাইপিংয়ের ইতি ঘটাবে। নতুন এই প্রযুক্তিতে একটি অদৃশ্য ফ্লুইড স্তর স্ক্রিনে বোতামের মতো উঠে আসবে আসবে অপ্রয়োজনে স্ক্রিনের কাচের ভেতরেই তা মিলিয়ে যাবে।

জানা যায়, সুদীর্ঘ অপেক্ষার পর যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার গবেষকরা এই প্রযুক্তিটি বানিয়েছেন। লাসভেগাসে একটি ৭ ইঞ্চি ট্যাবলেটের ওপর প্রযুক্তিটির প্রদর্শনী নিয়ে টেলিভিশনগুলো রিপোর্ট প্রচার করেছে। ট্যাকটাস নামের একটি প্রতিষ্ঠান এই নতুন আইডিয়া নিয়ে মাঠে নেমেছে। এবছরের শেষভাবে এ প্রযুক্তি পুরোদমে উৎপাদনে যেতে পারবে বলেই তাদের ধারনা।

বলাবাহুল্য, এ প্রযুক্তি বাজারজাত হলে মোবাইলের দুনিয়ায় পাল্টে যাবে আর এক রূপ।

-রেহানা আক্তার লুনা

 

 

সময়ের কথায় প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।