কবিতা: নীরু মামার অন্তিম মুহুত্ব

কবিতা: নীরু মামার অন্তিম মুহুত্ব

‍তোমার স্মৃতির পাতায়
আজ বেদনা ভরপুর আনাচে কানাচে
বিষাদ জমেছে আমার চোখে
সুখের ঠিকানা খুঁজতে খুঁজতে
হঠাৎ তুমি হারিয়ে গেলে মেঘের আড়ালে
তোমার বিদায় বেলার, ছিন্ন বাঁধন , অনেক মায়ার
নাড়িয়ে দিলো, বুকের ভেতর বাজিয়ে গেলো বিষণ্ণতার সুর
তোমার সেই শেষ নিশ্বাস
আজো বেঁচে আছে এটা আমার বিশ্বাস
জীর্ণ দেহে তোমার ফ্যাকাশে রঙ
নিথর মায়ায়, যতন করে
লুকিয়ে রাখে, স্মৃতির ছায়ায়
হাহাকারে ছন্নছাড়া হঠাৎ করেই হারিয়ে ফেলা
কবি যে এখন নিশ্চুপ করেনা আর বিদ্রুপ
বিষাদ কথন, শিথিল বাঁধন.
দুঃখ গুলো, সব হারানোর
রাত বারোটায় সব হারিয়ে যায়
একটা ছোট্ট মেয়ে তোমার পাশে বসে রয়
হঠাৎ নিঃশ্বাসের শব্দে সে থমকে যায়
মামা মরে নাই, মামা মরে নাই বলে চিত্কারে চোখের জলে বুক ভাসায়
ঠিক যেখানে কান্না গুলো আড়াল ছিলো, ইটের চাপায়
কষ্ট গুলো কাব্য লেখে অমিত্রাখর,
সেই ছোট্ট মেয়েটি তার মামাকে হারায়
কষ্টেরা ধেয়ে আসছে সেটা আগাম জানায়
ফাগুন রোদন কষ্টে ভরা স্মৃতির কাঁদন দুঃখ চাপা
ইচ্ছেরা সব বন্দীশালায় অনিচ্ছেদের শেকল খাঁচায়……
হঠাৎ করেই কোথায় যেন মামাকে হারিয়ে ফেলা
মামাকে ছাড়া সেই ছোট্ট মেয়েটা যেন নিঃস্বতারা
মেঘমল্লার অম্বরেতে
সেই ছোট্ট মেয়েটা তার মামাকে হারিয়ে ফেললো চিরতরে ।

-কবি: অর্পিতা ঐশ্বর্য

Loading…

সময়ের কথায় প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Loading…

Facebook fan page

Leave a Reply

Your email address will not be published.