|

মাহাবুবুল হাসান নীরুর ফোবানা অ্যাওয়ার্ড

 

বাঁয়ে : মাহাবুবুল হাসান নীরু, ডানে : ফোবানা কর্তৃপক্ষের পত্র...

বাঁয়ে : মাহাবুবুল হাসান নীরু, ডানে : ফোবানা কর্তৃপক্ষের পত্র…

 

র্তমানে কানাডায় বসবাসরত স্বনামধন্য সাংবাদিক ও গল্পকার মাহাবুবুল হাসান নীরুকে উত্তর আমেরিকার সব চাইতে সন্মানজনক অ্যাওয়ার্ড ‘ফোবানা অ্যাওয়ার্ড ২০১৩’ প্রদান করেছে মন্ট্রিয়ল ফোবানা কর্তৃপক্ষ। বাংলা সাহিত্য ও সাংবাদিকতায় বিশেষ অবদানের জন্য তাঁকে এই অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়। মন্ট্রিয়ল ফোবানা সম্মেলনের কনভেনার এজাজ আকতার তৌফিক কর্তৃক স্বাক্ষরিত এক পত্রে তাঁকে গত ১০ আগষ্ট এ অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্তির বিষয়টি জানানো হয়। উক্ত পত্রে উল্লেখ করা হয়, ‘আমরা আনন্দের সাথে জানাচ্ছি যে, বাংলা সাহিত্য ও সাংবাদিকতায় বিশেষ অবদান রাখার জন্য ফোবানা মন্ট্রিয়ল’১৩ আপনাকে ‘ফোবানা এ্যাওয়ার্ড ২০১৩’ প্রদানের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেছে।

আগামী ৩১আগষ্ট-১সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ২৭তম ফোবানা সম্মেলন, মন্ট্রিয়লে আনুষ্টানিকভাবে আপনাকে এ এ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হবে।

আপনার সর্বাঙ্গীন সাফল্য আমাদের কাম্য।’

উল্লেখ্য,  এ বছর সাহিত্য ও সাংবাদিকতা এবং শিক্ষা ও সমাজসেবা দু’টি ক্ষেত্রে  দু’জনকে এ অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়।

 

এক নজরে মাহাবুবুল হাসান নীরু : জন্ম ১৯৬৫ সালের পহেলা জুন  রংপুর জেলার পীরগাছা থানার অনন্তরাম গ্রামে। কৈশোরের শুরুতেই ফুটবলের সাথে গড়ে ওঠে তার সুনিবিড় সম্পর্ক। ফুটবলের মাঠে প্রায় এক যুগ গত করে এক সময় ধীরে ধীরে তার প্রবেশ ঘটে সাহিত্য ও সাংবাদিকতার জগতে। পরবর্তীতে পেশা হিসেবে সাংবাদিকতাকেই বেছে নেন। ’৯০-এ যোগ দেন ইত্তেফাক ভবন থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক রোববার পত্রিকায়। প্রথমে স্টাফ রিপোর্টার হিসেবে যোগ দিলেও পরে তিনি পত্রিকাটির নির্বাহী সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। একাধারে এ দায়িত্ব পালন করেন দীর্ঘ এক যুগেরও বেশী সময়। রোববারের নির্বাহী সম্পাদকের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি ১৯৯২ সালে তিনি প্রকাশক এবং প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক হিসেবে রোববার পাবলিকেশন্সের নতুন ক্রীড়া পত্রিকা পাক্ষিক ক্রীড়ালোক প্রকাশ করেন। পরবর্তীতে যে পত্রিকাটি রচনা করে দেশের পত্রিকা জগতে এক সমৃদ্ধ ইতিহাস। ২০০৭ সালের গোড়া থেকে ২০০৮ সালের জুন পর্যন্ত রোববার ও ক্রীড়ালোকের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি তিনি দৈনিক ইত্তফাকের এই নগরী, ক্রীড়াঙ্গন, রিয়েল এস্টেট, রূপসি চট্টগ্রাম, কাঞ্চনকণ্যা সিলেট বিভাগগুলোর বিভাগীয় সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। প্রিন্ট মিডিয়া ছাড়া ইলেকট্টোনিক মিডিয়াতেও রয়েছে তার পদচারণা। নির্মাণ করেছেন  নাটক ও টক-শো। সাংবাদিকতার পাশাপাশি তিনি বিভিন্ন শাখায় লেখালেখিও করেছেন প্রচুর। প্রকাশিত গ্রন্থের সংখ্যা ৩৭। স্বীকৃতিস্বরূপ পেয়েছেন বেশ ক’টি পুরস্কার। সম্প্রতি কানাডা থেকে প্রকা‍শিত তার ‘সেরা গল্প’ ও ‘হৃদয়ছোঁয়া পঁয়ত্রিশ’ ই-গ্রন্থ দুটি ব্যাপক পাঠকপ্রিয়তা লাভ করে। বর্তমানে তিনি কানাডা থেকে প্রকাশিত বিপুল পাঠকপ্রিয় অনলাইন সাপ্তাহিক সংবাদপত্র ‘সময়ের কথা’ সম্পাদনা করছেন। এ ছাড়া তিনি টরেন্টো থেকে প্রকাশিত বর্তমান সময়ে কানাডার সব চাইতে জনপ্রিয় সংবাদপত্র ‘বাংলা মেইলে’র একজন উপদেষ্টা সম্পাদক।

উল্লেখ্য, ২০০৮ সালে জুন মাসে পার্মানেন্ট রেসিডেন্ট হিসেবে তিনি কানাডায় যান। বর্তমানে কানাডার আলবার্টা প্রদেশের ক্যালগেরিতে বসবাস করছেন।

-সময়ের কথা রিপোর্ট

সময়ের কথায় প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

মন্তব্য করুন





টুইটারে আমরা

পূর্বের সংখ্যা