সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মাঝে “শিক্ষা সহায়ক সামগ্ৰী” বিতরণ কর্মসূচি

সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মাঝে “শিক্ষা সহায়ক সামগ্ৰী” বিতরণ কর্মসূচি
সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের অবৈতনিক স্কুলের শিশুদের মাঝে শৈলী ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ২০১৯ উপলক্ষ্যে বই, অর্থ এবং অন্যান্য শিক্ষা সহায়ক সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের অবৈতনিক স্কুলের শিশুদের মাঝে শৈলী ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী (২০১৯) উপলক্ষ্যে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২১ই ফেব্রুয়ারীতে শিক্ষা সহায়ক সামগ্রীসহ নগদ অর্থ বিতরন করা হয়।

ঢাকার উত্তরার ১১ নম্বর সেক্টরের আশেপাশে থাকা বস্তি হতে প্রায় ৫০ জন হতদরিদ্র ছাত্রছাত্রীদের মাঝে শিক্ষা সহায়ক সামগ্রী এবং নগদ অর্থ বিতরন করা হয়। উত্তরার ১১ নম্বর সেক্টরের ৪ নম্বর রোডের ২০ নম্বর বাড়ির খোলা জায়গায়-এ বাক্তি উদ্যোগে পরিচালিত হয় “উন্মেষ পাঠশালা” নামে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের অবৈতনিক স্কুল। এর কো- অরডিনেটর জনাব সাজেদুর রহমান বুলবুল ও শিক্ষক তাস্লিমা সাহনুর এর সহযোগিতায় বই, খাতা, কলম, রবার, পেন্সিল, কাটার সহ অন্যান্য শিক্ষা উপকরণ বিতরন করে শৈলী ফাউন্ডেশনের ঢাকা বিভাগীয় টিম।

শিক্ষা উপকরণ বিতরন- এর পূর্বে শৈলী সদস্য রাকিব ২ ঘণ্টা ব্যাপী শ্রেণী উপযোগী বিভিন্ন বিষয়ের উপরে পাঠদান করেন। পারিবারিক অবস্থা এবং পড়াশুনার বিষয়ে খোঁজ খবর নেন শৈলী প্রতিনিধি সাহিনুর, সুহান এবং মুজাহুদুল। এ উপলক্ষ্যে আয়োজিত কর্মসূচিতে সার্বিক তথাবধনা ছিলেন শৈলী প্রতিনিধি এবং ঢাকা বিভাগের কো-অর্ডিনেটর সালেহিন নির্ভয়।

৩য় শ্রেণীর ছাত্রী, “আশা” – রাস্তার পাশে পিঠা বিক্রি করে যার জীবন চলে, সারাদিন পিঠার দোকানে বসে কাজ করতে হয়। শিক্ষা উপকরণ পেয়ে আশা খুবই উচ্ছ্বসিত। এই অল্প উপকরণ সামগ্রী দিয়েই তার অনেক দিন চলে যাবে। মা বাবার কাছে অনেক দিন আর খাতা কলমের জন্য ধর্না দিতে হবে না, এটা ভেবেই সে আনন্দিত।

সুমনের বাবা ভ্যান-চালক। অসুস্থতার জন্য অনেক দিন ভ্যানও চালাতে পারছে না। তাই তাদের সংসার চালানো মাঝে মাঝে দায় হয়ে যায়। গত কয়েক দিন যাবত তারা নানান সমস্যায় জর্জরিত। এমন সময় এমনসব শিক্ষা উপকরণ পেয়ে তার অনেক উপকারই হল। এমনি অনেক সমস্যার মধ্যেই তাদের জীবন চলে। তবুও তারা পড়াশুনা চালিয়ে নিতে চায়। দানবীর মানুষের সাহায্যের প্রত্যাশায় তারা অপেক্ষা করে বসে থাকে। মাঝে মাঝে কেউ কেউ ভাল খাবার দিয়েও যায়।

“উন্মেষ পাঠশালা” এর কো- অরডিনেটর জনাব সাইদুর রহমান বললেন ভিন্ন এক আয়োজনের কথা – সমাজের বিত্তবানদের ছেলেমেয়েদের সাথে সুবিধাবঞ্চিত এইসব শিশুদের খেলাধুলার আয়োজন করার কথা। এতে অর্থের জন্য শৈলী ফাউন্ডেশন এর কাছেও সহযোগিতা চেয়েছেন। আর এতে সাহায্য করার জন্য প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ঢাকা বিভাগের কো-অর্ডিনেটর সালেহিন নির্ভয়। শৈলী ফাউন্ডেশন এর প্রত্যেকেই এই কাজের সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত থেকে সহযোগিতা করতে চান। সেই সঙ্গে সমাজের সকল স্তরের মানুষকে এই মহৎ উদ্যোগের সাথে সম্পৃক্ত হতে আহ্বান জানান।

উল্লেখ্য, উক্ত স্কুলে বর্তমানে প্রায় ৫০ সুবিধাবঞ্চিত শিশু বিনা বেতনে শিক্ষাগ্রহণের সুযোগ পাচ্ছে।

Loading…

সময়ের কথায় প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Loading…

You must be logged in to post a comment Login